WaukCat
Let Learn Electric Power and Machines

ডিজেল ইঞ্জিনের বিভিন্ন এলার্ম ও প্রোটেকশান সিস্টেম, সমস্যা ও সমাধান

  • হাই জ্যাকেট ওয়াটার টেম্পারেচার :-

ইঞ্জিনের টেম্পারেচার সাধারণত লোড বাড়া কমার সাথে পরিবর্তিত হয়। ফুল লোডে একটি  ইঞ্জিনের অপারের্টিং  টেম্পারেচার ( ৮৮-৯৯ সেঃ ) বা ( ১৯০ – ২১০  ফা) থাকে। এই টেম্পাচার ১০০ সেঃ হলেই ইঞ্জিন এলার্ম দিবে, কারণ ১০০ সেঃ হচ্চে পানির বয়েলিং টেম্পারেচার।  এই এলার্ম দেবার কিছুক্ষন পরেই শাট-ডাউন এলার্ম দিয়ে ইঞ্জিন ট্রিপ বা বন্ধ হয়ে যাবে। যদি ইঞ্জিনের রেডিয়েটর আপরিস্কার থাকে,  রেডিয়েটরের ফ্যান বেল্ট যদি লুজ থাকে বা ছিড়ে যায়, পরিমান মত পানি রেডিয়েটরে যদি না থাকে, জ্যাকেট ওয়াটার থার্মোষ্টাট ভাল্বে যদি ঠিক ভাবে কাজ না করে কিংবা ইঞ্জিনের লোড যদি হঠাৎ বেড়ে যায়, তা হলে ইঞ্জিনের হাই জ্যাকেট ওয়াটার টেম্পারেচার এলার্ম আসতে পারে।

  • লুব ওয়েল প্রেসার লোঃ

যদি লুব ওয়েল পাম্প ঠিক ভাবে কাজ না করে, লুব ওয়েল ফিল্টার জ্যাম বা অপরিস্কার থাকে অথবা ইঞ্জিন এর সাম্প এ যদি পরিমান মত লুব ওয়েল না থাকে বা কম থাকে কিংবা লুব ওয়েল লাইনে যদি বাতাস লক হয়ে থাকে তাহলে “লো লুবওয়েল প্রেসার” এলার্ম আসবে । লুব ওয়েল প্রেসার এর সীমা হচ্ছে সর্বোচ্চ ৬০০ কেপিএ এবং সর্বনিম্ন ২৭৫ কেপিএ। এর বাহিরে গোলেই ইঞ্জিন ট্রিপ করে যাবে। স্বাভাবিক লুব ওয়েলের প্রেসার হচেছ ৪২২ কেপিএ।

  • আন্ডার /অভার ফ্রিকোয়েন্সী বা ভোল্টেজ :-

ইঞ্জিন চলার সময় ফ্রিকোয়েন্সী ৫০ হার্জ এবং ভোল্টেজ (৪০০-৪১৫) ভোল্ট থাকবে। কিন্ত একটি নির্দিষ্ট সীমার বাহিরে গেলে ইঞ্জিনের ফ্রিকোয়েন্সী, ভোল্টেজ বাড়তে বা কমতে পারে। ইঞ্জিনের স্পীড বেশী কমে গেলে হার্জ এবং ভোল্টেজ কমে গিয়ে ট্রিপ করতে পারে। আবার হঠাৎ করে লোড কেটে গেলে ইঞ্জিন স্পীড বেড়ে গিয়ে অভার ফ্রিকোয়েন্সী কিংবা অভার ভোল্টেজ ট্রিপ করতে পারে। সাধারণত ফুয়েল সাপ্লাই বাধা গ্রস্থ হলে ইঞ্জিনের আর পি এম কমে যায় এবং তখন ইঞ্জিনে লোড থাকলে আন্ডার ফ্রিকোয়েন্সী বা  আন্ডার ভোল্টেজ এলার্ম  এসে ইঞ্জিন ট্রিপ করে বা বন্ধ হয়ে যাবে।

ডিজেল ইঞ্জিনের আরও কিছু সমস্যা এবং তা সমাধানের তাৎক্ষনিক উপায় 

ক) ইঞ্জিনের আর পি.এম ধীরে ধীরে কমে আসে ইঞ্জিনের লোড কমে যায় এবং এক সময়ে ইঞ্জিন বন্ধ হয়ে যায় :-

  • এই সমস্যা থেকে রক্ষা পেতে হলে সব সময় ভাল, ভেজাল মুক্ত ডিজেল ব্যবহার করতে হবে। ফুয়েল ফিল্টার ও ডিজেল ওয়াটার সেপারেটার পরিস্কার রাখতে হবে। পানি ড্রেন করতে হবে।
  • চালু অবস্থায় ডিজেল ভরা যাবে না। কারণ এতে ট্যাংকের তলার ময়লা ফিল্টার কে জ্যাম করে দেয়।
  • নির্দিষ্ট সময়ের অতিরিক্তি সময় ইঞ্জিন চালানো যাবে না।

খ) ইঞ্জিনের জ্যাকেট ওয়াটার টেম্পারেচার বেড়ে যাওয়ার কয়েকটি কারণ :-

  • ইঞ্জিনের রেডিয়েটরে পরিমান মত পানি না থাকলে।
  • রেডিয়েটর অপরিস্কার থাকলে।
  • জ্যাকেট ওয়াটার থার্মোস্ট্যট ভাল্ব বা টেম্পারেচার রেগুলেটার যদি ঠিক ভাবে কাজ  না করে।
  • হঠাৎ ইঞ্জিনের লোড বেড়ে গেলে।
  • ইঞ্জিনের ফ্যান বেল্ট ছিড়ে গেলে বা লুজ হয়ে গেলে ।
  • ইঞ্জিন রুমের আশে পাশের তাপমাত্রা বেশী থাকলে।

গ)  ইঞ্জিন চালু দিতে সমস্যার কিছু কারণ সমূহ :-

  • স্টার্টিং মটর দুর্বল বা ব্যাটারী দুর্বল স্টার্টিং পাম্প এর প্রেসার কম ।
  • ডিজেল ফুয়েল প্রেসার কম। সাধারণ ফুয়েল লাইনে বাতাস ঢুকলে এয়ার – লক হলে তা বাইর না করা পর্যন্ত ইঞ্জিন কখনই চালু হয় না। এর জন্য ফিল্টারের বেজমেন্টে এয়ার লক নাট খুলে ফুয়েল প্রাইমিং পাম্প দ্বারা পাম্প করতে হবে। বাতাস ফেনার মতো ডিজেলের সাথে বেরিয়ে আসবে। এভাবে সমস্ত বাতাস বের করে ইঞ্জিন চালু দিতে হবে।
  • ইনজেক্টার এর সমস্যা থাকতে পারে। তাছাড়া ইনজেকশান পাম্পের ও সমস্যা থাকতে পারে।
Similar posts
  • CAT ডিজেল ইঞ্জিন এর এক্সষ্ট ধুঁয়ার রঙ... ডিজেল ইঞ্জিন এর এক্সষ্ট ধুঁয়ার রঙ তিনটি যেমনঃ কালো, সাদা ও নীল রঙের দেখা যায়ঃ কালো ধুঁয়াঃ এয়ার/ফুয়েল রেশিও বেলেন্স না হলে, তুলনামুলক বেশী ফুয়েল মিশ্রিত হলে কিংবা যথেষ্ট পরিস্কার বাতাস কম্বাশ্বন চেম্বারে প্রবেশ করতে না পারলে। ত্রুটিপূর্ণ ইঞ্জেক্টর ত্রুটিপূর্ণ ইঞ্জেক্টর পাম্প ময়লা বা ব্লকড এয়ার ফিল্টার ত্রুটিপূর্ণ টার্বোচার্জার সিলিন্ডার হেডের ইনলেট ভাল্ব কার্বন ডিপোজিটের [...]
  • CAT ডিজেল ইঞ্জিন এক নজরে ট্রাবল শুটিং... CAT ডিজেল ইঞ্জিন এক নজরে ট্রাবল শুটিং চার্ট অনুযায়ী কিছু বর্ননাঃ ১। কম্প্রেশন কম :– ইঞ্জিন সিল্ডিারের কমপ্রেশন কম হলে জ্বালানীকে পোড়ানোর জন্য পর্যাপ্ত তাপ তৈরী করতে পারবে না। ফলে ইঞ্জিন স্টার্ট নিতে কষ্ট হবে। (ডিজেলের ফ্লাশ পয়েন্ট ২১০০ সেঃ) ইঞ্জিন অতিরিক্ত সময়ে চললে এ সমস্যা  হতে পারে। সাধারণত: ঠান্ডা ইঞ্জিনে কম্প্রেশান টেষ্ট করতে হয়।  [...]
  • ডিজেল ইঞ্জিনের এয়ার ইনলেট সিস্টেমের ব... আমরা জানি আগুন সৃষ্টির জন্য তিনটি জিনিসের দরকার  হয় তা  হচ্ছে :- ১)      দাজ্য পদার্থ (ফুয়েল /গ্যাস) ২)      তাপ ( টেম্পারেচার/ হীট) ৩)      বাতাস (অক্সিজেন ) এয়ার ইনলেট সিস্টেমের যন্ত্রাংশ সমূহ :- এয়ার ইনলেট সিস্টেমের মধ্যে রয়েছে – এয়ার ফিল্টার, টাবোচার্জার, আফটার কুলার, সিলিন্ডার হেড, এয়ার ইনলেট ভাল্ব, কম্বাশ্বন চেম্বার । এয়ার ইনলেট সিস্টেম কি [...]
  • ডিজেল ইঞ্জিনের জ্যাকেট ওয়াটার কুলিং স... ইঞ্জিনকে চালানোর জন্য যে ডিজেল পোড়ানো হয়, তাতে ইঞ্জিন প্রচুর উত্তপ্ত হয়, তাই এর তাপমাত্রাকে কমানোর জন্য ইঞ্জিনের ভিতরে পানি ব্যবহার করা হয়। এটাই জ্যাকেট ওয়াটার কুলিং সিস্টেম। এই কুলিং সিস্টেম সাধারনত – দুই প্রকার :- ১) ওপেন সার্কিট ২) ক্লোজ সার্কিট কুলিং সিস্টেম। ১) ওপেন সার্কিট :- এই  পদ্বতিতে সাধারণত: বাহিরের খোলা কোন জলাশয়, [...]
  • CAT ডিজেল ইঞ্জিনের লুব্রিকেটিং সিস্টে... ইঞ্জিনকে সচল রাখতে হলে ইঞ্জিনের লুবওয়েল খুবই অপরিহার্য। লুবওয়েল ইঞ্জিনের জ্বালানী হিসাবে ব্যবহৃত হয় না। ইঞ্জিনকে সাধারনতঃ ঠান্ডা রাখা, মুভিং পার্টস গুলোকে সচল ও পরিস্কার রাখা, ইঞ্জিনের যন্ত্রাংশ গুলোকে মরিচা থেকে রক্ষা করাই হচ্ছে লবু ওয়েলের কাজ। লুব ওয়েল সিস্টেমের যন্ত্রাংশ সমূহ :- লুব ওয়েল সিস্টেমে যে সকল যন্ত্রাংশ থাকে তা হচ্ছে – ইঞ্জিন সাম্প [...]